১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, বৃহস্পতিবার

৮ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে হত্যা করলো বর্বর বাবা!

আপডেট: February 6, 2020

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ফের সেই উত্তর ভারতের যোগীরাজ্য! নিজের নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণের পর শ্বাসরুদ্ধ করে খুন করল বাবা। সেপটিক ট্যাংক থেকে ৮ বছরের ওই কন্যার দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে লখনউ থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে, সীতাপুর জেলার কামটাপুরওয়া গ্রামে।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত নিজের মেয়েকে শ্বাসরোধ করে খুন করে, সেপটিক ট্যাঙ্কে দেহ ফেল দিয়েছিল। খুন করার আগে মেয়েকে সে ধর্ষণ করে। ঘটনার তদন্তকারী পুলিশ অফিসার জানান, মেয়েকে খুনের পর নিজেকে আড়াল করতে ওই ব্যক্তি থানায় গিয়ে নিখোঁজ ডায়েরি করেন। পুলিশের সঙ্গে মেয়েকে খুঁজতে থাকে। কিন্তু, তার অভিনয় টেকেনি। পুলিশ অভিযুক্ত হিসেবে তাকে চিহ্নিত করে ফেলে।

পুলিশ জানায়, তদন্তের সময়েই কালপ্রিট হিসেবে মেয়েটির বাবার নাম সামনে আসে। পুলিশ হেফাজতে সে নিজের দোষ কবুল করে বলেই তদন্তকারী অফিসার দাবি করেন।

জানা যায়, গত শনিবার রাতে সে মেয়েকে ধর্ষণ করে। সেসময় বাড়িতে পরিবারের আর কেউ ছিল না। এরপর নিজের অপরাধ লুকোতে সে মেয়েকে গলা টিপে খুন করে। বাড়িতে সবাই আসার আগেই সেপটিক ট্যাঙ্কে গিয়ে দেহ ফেলে দিয়ে আসে। যাতে কেউ খুঁজে না পায়।

রবিবার সকালে সে নিজেই গিয়েছিল থানায়। মেয়ের নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করতে।

shares